• বুধবার ১৯শে আশ্বিন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ ৪ঠা অক্টোবর, ২০২৩ ইং
  • রাত ৮:১৮

অর্থ নেই, বেতন বন্ধ ক্যারিবীয় ক্রিকেটারদের!

24 April, 2020 AM 12:04 ১৬৪ বার দেখা হয়েছে

করোনা ভাইরাসের প্রভাবে অর্থনীতিতে লেগেছে বড় ধাক্কা। ক্রীড়া অর্থনীতিও করোনার ধাক্কায় জেরবার। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত ইউরোপের বহু ফুটবল ক্লাব খেলোয়াড়-কর্মকর্তাদের বেতন কম দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সারা বিশ্বের ক্রিকেট বোর্ডগুলো এখনো সে পথে হাঁটেনি। তবে এরই মধ্যে ক্রিকেট বোর্ডগুলোর কোষাগারে টান পড়তে শুরু করেছে। ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজ (সিডব্লিউআই) গত দুটি সিরিজের ম্যাচ ফি পরিশোধ করেনি ক্রিকেটারদের। নারী বিশ্বকাপে খেলা দলও পায়নি ম্যাচ ফি। এছাড়া ঘরোয়া ক্রিকেটের ম্যাচ ফিও পরিশোধ করেনি ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

এ প্রসঙ্গে ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রধান নির্বাহী জনি গ্রেভ বলেন, ‘অর্থনৈতিক দিক দিয়ে খারাপ সময় যাচ্ছে ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজের।

তবে যে পরিমাণ অর্থ আমাদের জমা রয়েছে তা যথেষ্ট। অগ্রাধিকার ভিত্তিতি শিগগিরই খেলোয়াড়দের ম্যাচ ফি দিয়ে দেয়া হবে।’ গত জানুয়ারিতে ঘরের মাঠে তিন ম্যাচের ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এরপর ফেব্রুয়ারি-মার্চে শ্রীলঙ্কা সফরে তিন ওয়ানডে ও দুই টি-টোয়েন্টি খেলেছে ক্যারিবিয়ানরা। এই দুই সিরিজের সবগুলো ম্যাচের পারিশ্রমিক বকেয়া রয়েছে ক্রিকেটারদের।

করোনা ভাইরাসের কারণে যে ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থার অর্থনৈতিক অবস্থা এমন হয়েছে তা নয়। ২০১৮ সালের বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হোম সিরিজে বড় অঙ্কের ক্ষতি হয় ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজের। সেটার জের এখনো টানতে হচ্ছে তাদের। আবার টেন স্পোর্টসের সঙ্গে সম্প্রচার সত্ত্ব চুক্তি শেষ হয়ে গেলেও করোনা ভাইরাসের প্রভাবে এর নবায়ন আটকে গেছে। জনি গ্রেভ ক্ষতির পরিমাণ জানাতে গিয়ে বলেন, ‘বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হোম সিরিজ আয়োজন করে ক্ষতি হয়েছে ২২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।’

করোনা ভাইরাসের প্রভাবে খেলা বন্ধ হওয়ার আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ঘরোয়া ক্রিকেট মৌসুম প্রায় শেষের দিকে ছিল। দুই রাউন্ড বাকি থাকতেই বার্বাডোজকে প্রথম শ্রেণির আসরের চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করে ঘরোয়া মৌসুমের ইতি টানে ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তবে এখনো বকেয়া রয়ে গেছে ঘরোয়া আসরে খেলা ক্রিকেটারদের ম্যাচ ফি। ম্যাচ প্রতি ১ হাজার ৬০০ মার্কিন ডলার পেয়ে থাকেন প্রথম শ্রেণির আসরে খেলা ক্রিকেটাররা।

বর্ণ টিভি